(১৩)


“আজ- আজ এক অউর আঁশু পি লে- আজ এক অউর বুঁদ দিল পে উতর লে-আজ এক অউর বারিস মে মন ভিগোলে।।”

পাঠক ও সুন্দরীগণ এ আবার ভেবে বসবেন না যে শায়রী করছি- ও সব ঠিক আসে না। লে্লও এখানে খাপ খায় না- তাই খাপ না খোলাই ভাল।

মাস ছয়েক আগের ঘটনা- পাপের ফল কি ভাবে হাতে নাতে পেতে হয় তাই জানাই।
সকাল ৮টা ৩০- দারোয়ান বেড়োবার সময় সেলাম ঠুকলো- Curve-এ ছিলাম বলে উত্তর দেওয়া হল না- প্রথম পাপ।
পথে বেড়িয়ে এফ এম-এ ‘সাজন ঘর আনা থা… ভিগে ভিগে মন’ শুনলাম- দ্বিতীয় পাপ কাজ।
আরও একটু পথ- এফ এম-এ বেটিং হচ্ছে- ৯টা বেজে ১০ মিনিটের মধ্যে বৃষ্টি হবে কি না? আকাশের দিকে তাকিয়ে দেখলাম ‘ওরা থাকে ওধারে মার্কা মেঘ।’ মনে মনে বললাম- ফু!! তৃতীয় পাপ কাজ।
লক্সমি নগরের মোড়, এফ এম-এ বলল- গুরগাঁওতে বৃষ্টি হচ্ছে। আমি বললাম আমার কি? চতুর্থ পাপ।
ITO ব্রীজে চড়লাম- আকাশে তখন এক পোঁচ কালো মেঘের উপর দিয়ে একটা বক উরে গেল- কালো মেঘে সাদা বক দেখেই তো রামকৃষ্ণ অজ্ঞান হয়ে গেছিলেন। আমি পাপি তাপি মানুষ- আগের‌্ দিন আবার sizzlers খেয়েছি 70 mm-এ। আমার তখন বচ্চন বাবুর Waqt- the race against time! সময় কোথা? জোরে চালালাম বাইক- রেডিওতে তখন ‘ইঁউহি চলাচল রাহি’ হচ্ছে- বাধ্য ছেলের মতো নির্দেশানুসারে চলতে থাকলাম- ব্রীজের মাঝামাঝি হেলমেটে তিন ফোঁটা পড়ল- আমার পাপের পেয়ালা পূর্ণ হল।
ITO পৌছলাম, বৃষ্টির ধারাপাতের হিসাব রাখা কঠীন হয়ে যাচ্ছে- শুরুর দিকের বৃষ্টিতে যখন স্কুটার বা বাইক চালাবেন, দেখবেন অসভ্য বৃষ্টি এমন এমন সব জায়গা ভিজিয়ে দেবে যে সেন্সর বোর্ড অনুমতি দেবে না। আরেকটু এগিয়ে মান্ডি হাউস- NSD-র দেওয়ালে কিছু সু ও কুদর্শন মুখোশ টাঙ্গানো আছে। আকাশও তাদের মতো মুখ ভেংচাতে শুরু করল। শেফালী খান( ওই যে শর্মিলার ছেলেটা)-এর Asian Paints-এর বিজ্ঞাপনটা মনে পরল- Paint Brush ডুবিয়ে ছুঁড়ে ছুঁড়ে রঙ মারছে- বৃষ্টিও।
কদিন আগে G-talk-এ নিজের tagline দিয়েছিলাম “নিশানে পে জো রহতে হ্যায়- নিশানো সে নহী ডরতে।” প্রকৃতি দেবী আমার প্রার্থনা যেন মন দিয়ে শুনেছিলেন- কথা রাখলেন বৃষ্টি ছুঁড়তে ছুঁড়তে। কদিন আগে এক শিল্পীর ছবি আঁকা দেখেছিলাম। ক্যানভাসে রঙ ঢেলে এপাশ ওপাশ করে প্যাটার্ন তৈরী করছিল- আমার পোশাক আশাকেরও একই অবস্থা।
ঝাপসা চরাচর- লে মেরিডিয়নের সামনে গাড়ী- পুট পুট করে বৃষ্টি কমতে শুরু করল। মোড় ঘুরেই অফিস- আকাশ মিঠুল চক্রবর্তী/ মাধুরী দিক্ষিত/ উত্তম কুমার ( যে যার পাখা তাকে হাওয়া দিন)-এর মত হাজার ওয়াটের আলো জ্বেলে বলল কেমন দিলাম! আমি বলার মতো অবস্থায় ছিলাম না!

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s