(৩)


বরোদায় রিলায়েন্স স্টেডিয়াম- দু ওভারে ঊনত্রিশ রান চাই ভারতের- আ মোল যা- এমন করে বলছি যেন মাঠে ছিলাম! না হে, বসে ছিলাম India Habitat Centreএর Utopia রেস্তোরাঁয়। কাজের জন্যই দরজার‌ পাশেই আজকালকার ক্যালেন্ডারের মতো TV! আমরা সবাই দরজার দিকে বসে অধীর আগ্রহে ভাজ্জির মিয়াদাদ হবার অপেক্ষায়- প্রসঙ্গত রেস্তোরাঁটিতে তথাকথিচ ভদ্রসন্তানদেরই আনাগোনা- উচ্ছাসকেও মেপে ও চেপে প্রকাশ করাই যাদের কাছে কাম্য! ৪৯তম ওভারের শেষ বল- করতে যাচ্ছে বীর পুঙ্গব ওয়াটসন( অক্রিকেটভাষীদের জন্য জানিয়ে রাখি শার্লক হোমসের সঙ্গে এনার কোনো সম্পর্ক নেই!) ভাজ্জির হাতে গদা থুড়ি ব্যাট! বলটা পড়ল অফ স্টাম্পের কিছুটা বাইরে good length-এ- ভাজ্জি গদা ঘোরালেন। ঠিক সেই সময় দুটি ভালো মানুষের পো দরজা দিয়ে প্রবেশ করল! জনগন সহর্ষোল্লাসে তাদের অভিবাদন করল- দুজনেই ভ্যাবাচ্যাকা- করেছে টা কি? বুঝতে বুঝতেই ৫ সেকেন্ড অতিক্রান্ত! জনতার অভিবাদন থামার লক্ষণ নেই! ছেলে দুটি অস্বস্তিতে- বাধ্য হয়ে সাহায্যার্থে পদার্পন করলাম! বললাম “যরা সাইড ফেস দিখাইয়ে- উধার নেহি ইধার।” ক্যালেন্ডারের দিকে তাকিয়ে ছেলে দুটির মুখেও হাসি ফুটলো- ভাজ্জি বাবুর গদা থেকে ছক্কার ফুলকি বেড়িয়েছে যে।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s