(৭৬)


বড় ফিসফাসটা তো কাল আসছে, তার আগে দুটো ট্রেলর ফিসফাস! ক্যাটাভরাস ছেলে মহায়… এই কদিন আগে একটা পুঁটলির মতো দেখতে ছিল আর এখন তার নিজস্ব ইমান ধরম, মান অভিমান, ফচকেমি আর মিচকেমি নিয়ে দেখতে দেখতে আদ্ধেক বড় হয়ে গেল। ছেলেটা কাল বুন্দির কেল্লায় দু হাতে মোট তিরিশ কেজির একটা বাটখারার মত পাথর তুলে বলে বাবা ছবি তোল। আমি হাঁই হাঁই করে গিয়ে ছবি তুলে টুলে বললাম, “উতারো! হাউয়া পয়দা করকে রাখে হ্যায় একদম!”
তা তার উত্তরে সে বলে, “কাউয়া বহুত গন্দা হোতা হ্যায়। ম্যায় কাউয়া নেহি পয়দা কিয়া হ্যায়!” আমি যে কি পয়দা করেছি কে জানে… তবে একটা অবয়ব পাচ্ছে যেটা, সেটা ভালয় মন্দয় মিশিয়ে বেশ লাগছে কিন্তু যাই বলুন।
যাই হোক, অনেক ইমো টিমো হল এবার এমন একটা ঘটনা বলব, যেটা না দেখলে বিশ্বাস করার পরামর্শ আমিও দেব না। কিন্তু আমি তো দেখেই ফেললাম… কি আর করি! একটা অতীব রুগ্ন হাহাকার হয়ে যাওয়া কুকুর অনেক দিন পর ভালমন্দ কিছু বেশীই খেয়ে ফেলেছিল বটে রাস্তার মাঝেই প্যান্টে হয়ে যাবে, এরকম পাটাকে ত্রিভঙ্গমুরারি করে সবে হালকা হতে যাবে। লোক জন দিল এক তাড়া, সে কোন রকমে দুলে দুলে পথের ধারে একটা গাছের পাশে দাঁড়িয়ে চোখ বুজে সারছিল দুনিয়ার সবথেকে দরকারি কাজ।
তা সে গাছের পাতা চিবুচ্ছিল এক বেম্বজ্ঞানী রাম ছাগল। পাতা চিবুতে চিবুতে তার কি হল দিল কুকুরের কান চিবিয়ে। তা সে কুকুর বড় বেদানার মত বাজিতে বাজিতে পেট খালি করে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়েই ঘুমিয়ে পড়েছিল হয়তো। কানচিবানি (কানচাপাটি বা কান পাড়াক্কা শুনিচি! এটাও মন্দ নয় কিন্তু! বেশ মার্শাল আর্ট মার্শাল আর্ট গন্ধ আছে নামটায়!) খেয়ে হাউঁ মাউ করে কেঁউ কেঁউ করে টলতে টলে ছুঁচোবাজির মতো এদিক ওদিক ছুটে টুটে একটা দোকানের সামনে বসে খিঁচোতে লাগল। সমবেত হাসির হল্লার মধ্যে দেখতে পেলাম, ছাগলটি নির্বিকার চিত্তে দুবার নাক মুখ ঝেড়ে আবার পাতা চিবুতে শুরু করে দিল। আরে বড়ে বড়ে শহরো মে অ্যাইসি ছোটি ছোটি বাতে তো হোতে র‍্যাহতে হ্যায়। হোক না বুন্দি পুটকি শহর… একটু চিত হয়ে শুতে কার না ইচ্ছে করে বলুন। এখন এই পর্যন্তই! বাকিটা রাতে!

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s